ইদুরের ওষুধ। প্রতীকী ছবি

হবিগঞ্জের আজমিরীগঞ্জ উপজেলার শিবপাশা গ্রামে ইদুরের ওষুধ খেয়ে জানুরা বেগম (৩৫) নামে এক গৃহবধু আত্মহত্যা করেছে। সে ওই গ্রামের আলী হোসেনের কন্যা। ২১ মে মঙ্গলবার দুপুরে তাকে অসুস্থ অবস্থায় উদ্ধার করে হবিগঞ্জ সদর আধুনিক হাসপাতালে নিয়ে আসলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষনা করেন।

আজমিরীগঞ্জ থানার (ওসি) শেখ নাজমুল হক জানান, শিবপাশা গ্রামের আলী হোসেনের কন্যা জানুরা বেগমকে কয়েক বছর পুর্বে বিয়ে দেয়া হয় বানিয়াচং উপজেলার মজলিশপুর গ্রামের ওমান প্রবাসি শেবুল মিয়ার সাথে। বিয়ের তাদের কোলজুড়ে ৩ সন্তানের জন্ম হয়। সম্প্রতি শেবুল মিয়া দেশে এসে আবার প্রবাসে ফিরে যায়।

দুপুরে জানুরা বেগম সকলের আগোচরে ইদুরের ওষুধ খেয়ে চটফট শুরু করে। বিষয়টি আঁচ করতে পেরে তার স্বজনরা তাকে উদ্ধার করে হবিগঞ্জ সদর আধুনিক হাসপাতালে নিয়ে আসে। এসময় কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে পরীক্ষা নিরীক্ষা করে মৃত ঘোষণা করে।

তবে সে কি কারণে আত্মহত্যা করেছে সে সম্পর্কে কিছু জান যায়নি বলেও জানান ওসি। ওসি আরো জানান, পুরো ঘটনাটি পুলিশ খতিয়ে দেখছে।

আজকের পত্রিকা/এমএআরএস