দিনাজপুরের নবাবগঞ্জের শেখ রাসেল জাতীয় উদ্যানের পাশে আশুড়ার বিলে কৃষি উন্নয়ন করপোরেশনের সেচ প্রকল্পের অধীনে নির্মিত ক্রস ড্যামের বাঁধ কাটায় অভিযোগে গোলাপগঞ্জ ইউনিয়নের বর্তমান ইউপি সদস্য সোহেল রানাকে আটক করে দিনাজপুর কারাগারে পাঠিয়েছে নবাবগঞ্জ থানা পুলিশ।

মঙ্গলবার ভোরে উপজেলা নবাবগঞ্জ হরিপুর গ্রাম থেকে ওই ইউপি সদস্য সোহেলকে আটক করা হয়। তিনি গোলাপগঞ্জ ইউনিয়নের বর্তমান ৩ নং হরিপুর ওয়ার্ড়ের ইউপি সদস্য।

এর আগে মঙ্গলবার রাতে বাংলাদেশ কৃষি উন্নয়ন করপোরেশন (বিএডিসি) নবাবগঞ্জ উপজেলা সহকারি প্রকৌশলী রাশেদুজ্জামান বাঁধ কাটা ও সরকারি সম্পদ নষ্ট করার অভিযোগ এনে ১৭ জনের নাম উল্লেখ এবং ৫ থেকে ৬শ জনকে অজ্ঞাত আসামী করে মামলা দায়ের করে। ওই মামলায় পুলিশ অভিযান চালিয়ে ইউপিসদস্য সোহেল রানাকে আটক করে। নবাবগঞ্জ থানার ওসি অশোক কুমার চৌহান বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

এদিকে, শেখ রাসেল জাতীয় উদ্যানের পাশে আশুড়ার বিলের পানি ধরে রাখার জন্য কৃষি উন্নয়ন করপোরেশন (বিএডিসি) সেচ প্রকল্পের অধীনে ১৮ লক্ষ ৬৪ হাজার টাকা ব্যয়ে ক্রস ড্যামটি নির্মাণ করা হয়। এটি নির্মানের শুরু থেকেই বিলের পাশ্ববতী হরিপুর গ্রামবাসিরা বাঁধা দিয়ে আসছিল।

এ নিয়ে তারা গত ৫ আগষ্ট মানববন্ধন করে। শুধু তাই নয় তারা জেলা প্রশাসককে লিখিত অভিযোগ দিয়েছিলেন। সর্বশেষ সোমবার রাতে ও মঙ্গলবার দুপুরে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সামনে গ্রামবাসিরা এসে বাঁধটি কেটে দেয়।

সরেজমিনে মঙ্গলবার বেলা সাড়ে ৩টায় হরিপুর বাজারে কথা হয় স্থানীয় কয়েক ব্যক্তির সঙ্গে। তারা বলেন, আশুড়ার বিলের পাশে প্রায় ১৯ হেক্টর জমিতে আমন ও ইরি ধান চাষ করা হতো। কিন্তু ক্রসড্যাম নির্মানের ফলে কোন ধান রোপন হয়না। ১৯৪৪ সাল থেকে গ্রামবাসি এই জমিগুলো ভোগদখল করে আসছিল। তাদের দাবি ক্রসড্যামটি নির্মানের ফলে হরিপুর মৌজার কৃষকরা অনাহারে দিনানিপাত করছেন।

উপজেলা সহকারি কমিশনা (ভূমি) মো.আল মামুন বলেন, আশুড়ার বিলের পাশে জমিগুলো সরকারের খাস জমি। গ্রামবাসিদের দাবি ভিত্তিহীন।

এ ঘটনায় দিনাজপুর অতিরিক্ত জেলাপ্রশাসক আবু সালেহ মো.মাহ্ফুজুল আলম, উপজেলা চেয়ারম্যান আতাউর রহমান ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো.নাজমুন নাহার বলেন, অনাকাঙ্খিত ঘটনা এড়াতে ক্রস ড্যামের আশপাশ এলাকায় ১৪৪ ধারা জারি করা হয়েছে।

মো.মাহাবুর রহমান/বিরামপুর