আত্মহত্যা। প্রতীকী ছবি।

চুয়াডাঙ্গার আলমডাঙ্গা উপজেলার অনুপনগের গ্রামে স্বামীর পরকিয়া প্রেমের বলি হলো ২ সন্তানের জননী গৃহবধু স্বপ্না খাতুন (৩২)।

১৩ মার্চ বুধবার বিকেলে স্বামীর সাথে রাগারাগি করে নিজ ঘরের আড়াই উড়না দিয়ে ফাঁস লাগিয়ে আত্মহত্যা করেন। সে ওই গ্রামের নওদাপাড়ার রতন আলির স্ত্রী।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে আলমডাঙ্গা থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আসাদুজ্জামান জানান, সম্প্রতি স্বামীর পরোকিয়া প্রেমের কথা জানার পর তাদের মধ্যে প্রায়ই ঝগড়া বিবাদ লাগতো।

বুধবার দুপুরেও একই বিষয় নিয়ে স্বামী রতন আলির সাথে গৃহবধু সপ্নার বেশ ভাল রকম ঝগড়া হয়। বিকেলে বাড়ির সবার অজান্তে গৃহবধু আাত্মহত্যা করে। সংবাদ পেয়ে পুলিশ সন্ধার আগে স্বপ্নার লাশ উদ্ধার করে।

ওসি আরও জানান, এবিষয়ে থানায় একটি অপমৃত্যু মামলা হয়েছে।

শামসুজ্জোহা পলাশ/চুয়াডাঙ্গা