ছয় শতাধিক শিক্ষার্থীদের ভবন জটিলতার অবসান ও জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবর্ষ উদযাপনের স্মৃতিচিহ্ন সরূপ সংযুক্ত আরব আমিরাতের রাস-আল-খাইমার বাংলাদেশ ইংলিশ প্রাইভেট স্কুল অ্যান্ড কলেজ বঙ্গবন্ধুর নামে রূপান্তরিত হতে যাচ্ছে। প্রস্তাবিত নতুন নাম ‘বঙ্গবন্ধু সেন্টেনিয়াল স্কুল অ্যান্ড কলেজ’।

সেই লক্ষ্যে ৩০ জুলাই মঙ্গলবার রাস-আল-খাইমার ইকোনমিক জোন (RAKEZ) এর সাথে নতুন জায়গায় বৃহৎ পরিসরে অত্যাধুনিক স্কুল নির্মানের লক্ষ্যে ৫০ বছর মেয়াদি জমির লিজ চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়েছে। চুক্তি স্বাক্ষর অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন সংযুক্ত আরব আমিরাতে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত মোহাম্মদ ইমরান এবং দুবাই ও উত্তর আমিরাতে নিযুক্ত বাংলাদেশের কনসাল জেনারেল মোহাম্মদ ইকবাল হোসেন খান।

১৯৯১ সালে রাস আল খাইমায় প্রতিষ্ঠিত বাংলা স্কুলটির নাম এই নিয়ে তৃতীয় দফায় পরিবর্তন হতে যাচ্ছে। ৮৭ হাজার বর্গফুট আয়তনের অবকাঠামো তৈরি ও অন্যান্য খরচ মিলে এতে ব্যয় হতে পারে প্রায় ১৫ মিলিয়ন দিরহাম। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আমিরাত সফরকালে অর্থ সহায়তার আশ্বাস দেন। ইতিমধ্যে ব্যবসায়ী ও প্রতিষ্ঠিত বেশ কয়েকজন প্রবাসী আর্থিক সহায়তার ঘোষণাও দিয়েছেন।

উল্লেখ্য, সংযুক্ত আরব আমিরাতে দুটি বাংলা স্কুলের একটি দেশটির রাজধানী আবুধাবিতে, অন্যটি প্রাদেশিক শহর রাস আল খাইমায়।

 

আজকের পত্রিকা/জিয়াউল হক জুমন/ইউএই প্রতিনিধি