আসাদুজ্জামান স্বপ্ন
সিনিয়র রিপোর্টার

জাতীয় মানবাধিকার কমিশনের চেয়ারম্যান কাজী রিয়াজুল হক। ছবি : সংগৃহীত

প্রতিবন্ধীরা এগিয়ে গেলে সমাজ ও দেশ উপকৃত হবে বলে মন্তব্য করেছেন জাতীয় মানবাধিকার কমিশনের চেয়ারম্যান কাজী রিয়াজুল হক। ৯ ফেব্রুয়ারি শনিবার সকাল ১১টায় জাতীয় প্রেসক্লাবের ভিআইপি লাউঞ্জে ইউনেস্কো পুরস্কার জয়ী দৃষ্টিপ্রতিবন্ধী ভাস্কর ভট্টাচার্যকে ভিজ্যুয়ালি ইম্পেয়ার্ড পিপলস সোসাইটির (ভিপস) দেওয়া সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন। তিনি বলেন, ‘সংবিধান বলেছে, আমরা সাম্যের জন্য কাজ করে যাবো। আমাদের সবার লক্ষ্যও তাই। আমরা সবাই মিলে যাতে একটি সাম্যের সমাজ গড়ে তুলতে পারি। প্রতিবন্ধীরা এগিয়ে গেলে সমাজ ও দেশ উপকৃত হবে। যত ধরনের প্রতিবন্ধকতা আছে, সবকিছু দূর করে এগিয়ে যাবো।’

কাজী রিয়াজুল হক বলেন, শিক্ষাক্ষেত্রে বাংলাদেশের একটি সাফল্য আছে, বছরের প্রথম দিনে শিক্ষার্থীরা বিনামূল্যে পাঠ্যবই হাতে পায়। এদের একটি অংশ আছে, যারা দেখতে পায় না। তাদের জন্য ভাস্কর কাজ করে চলেছেন। ভাস্কর দৃষ্টিপ্রতিবন্ধীদের জন্য যে প্রযুক্তি আবিষ্কার করে চলেছেন, এটা আমাদের গর্বের বিষয়। সদরঘাটে প্রতিবন্ধীদের লঞ্চে উঠার জন্য বিশেষ ব্যবস্থা করা হচ্ছে। ইতোমধ্যে কাজ শুরু হয়েছে। দেশের সব বাস, রেল ও নৌ টার্মিনালেই প্রতিবন্ধীদের জন্য বিশেষ ব্যবস্থা করা হলে একটি ইনক্লুসিভ সমাজ গড়ে উঠেবে।

তিনি আরও বলেন, প্রতিবন্ধীদের যদি কোনো শুভাকাঙ্ক্ষী থাকেন, তাহলে একমাত্র প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। প্রধানমন্ত্রী ২০১৬ সালে বলেছেন, ভাস্কর একজন সফল মানুষ। তার কাজের মাধ্যমেই তা প্রমাণ করেছে।

ভিপসের সভাপতি মোহাম্মদ ছায়েদুল হকের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন বৃত্তের সাধারণ সম্পাদক নাজমা আরা বেগম পপি। অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন- ব্লাইন্ড ল ইয়ার্স অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি অ্যাডভোকেট মোশাররফ হোসেন মজুমদার, ক্রিমিনাল ইনভেস্টিগেশনের (সিআইডি) নির্বাহী পরিচালক খন্দকার জহুরুল আলম, সেন্টার ফর ডিজঅ্যাবিলিটি ইন ডেভেলপমেন্টের (সিডিডি) নির্বাহী পরিচালক এম নোমান খান, মানুষের জন্য ফাউন্ডেশনের সহকারী সমন্বয়ক নাজরানা ইয়াসমিন, প্রতিবন্ধী বিশেষজ্ঞ ড. হুমায়ার মোরদেজি ও জাতিসংঘের প্রতিবন্ধী ব্যক্তির অধিকার বিষয়ক সনদের পরিবীক্ষণ কমিটির সাবেক সদস্য মনসুর আহমেদ চৌধুরী প্রমুখ।