শিশুদের অতিরিক্ত টুথপেস্ট ব্যবহার ক্ষতিকর। ছবি: সংগৃহীত

সেন্টার ফর ডিজিজ কন্ট্রোল অ্যান্ড প্রিভেনশন দ্বারা পরিচালিত সাম্প্রতিক এক গবেষণায় দেখা গেছে, অনেক শিশু ব্রাশ করার সময় অতিরিক্ত টুথপেস্ট ব্যবহার করছে। ফলে একটু বয়স হলেই এদের দাঁতে ছোপ ছোপ দাগ এবং হলদে রঙ ধারণ করার ঝুঁকি বেড়ে যায়। গবেষণায় আরও জানা গেছে যে, তিন থেকে ছয় বছরের মধ্যে প্রায় ৪০ শতাংশ বাচ্চা  পুরো কিংবা অর্ধেক টুথব্রাশ জুড়ে টুথপেস্ট ব্যবহার করে। যদিও বিশেষজ্ঞরা একদানা মটরশুটি সমান পেস্ট ব্যবহারের পরামর্শ দেন। এই গবেষণাটি তিন থেকে ১৫ বছরের মধ্যে ৫০০০ বাচ্চাদের উপর পরিচালিত হয়। চলুন জেনে নিই, শিশুদের কেন অতিরিক্ত টুথপেস্টের ব্যবহার ক্ষতিকর।

টুথপেস্টে ফ্লোরাইড

স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞরা পরামর্শ দেন যে, প্রত্যেককে ফ্লোরাইড দিয়ে পানি পান করা উচিত এবং দুই বছরেরও বেশি বয়সের প্রত্যেককে ফ্লোরাইড টুথপেস্ট দিয়ে প্রতিদিন দুবার ব্রাশ করা উচিত। শিকাগোর একজন শিশু চিকিৎসক বলেন, ফ্লোরাইডের অনেক স্বাস্থ্য সুবিধা রয়েছে কিন্তু এটি যত্নের সাথে ব্যবহার করা দরকার। ফ্লোরাইড একটি খনিজ যা মাটি এবং পানিতে পাওয়া যায়। ফ্লোরাইড ক্যাভিটি বা গহ্বরের বিরুদ্ধে লড়াই করে। যদিও ফ্লোরাইড টুথপেস্টের সাথে আপনার দাঁত ব্রাশ করা গুরুত্বপূর্ণ তবে তা কী পরিমাণে ব্যবহার করছেন তা নিয়ে সচেতন থাকতে হবে। তিন বছরের কম বয়সী বাচ্চাদের একবারে চালের দানার সমান পেস্ট ব্যবহারের পরামর্শ দেয়া হয়। আর তিন থেকে ছয় বছরের বাচ্চাদের মটরশুটি দানার সমান পেস্ট ব্যবহার করতে বলা হয়।