এ. এম. ফারহান সাদিক

আমি ব্যক্তিগতভাবে নিজেকে একজন মুজিব আদর্শের কর্মী মনে করি। কেননা আমার বিশ্বাসই আমার শক্তি। আমার অন্তর্নিহিত বিশ্বাস হলো, ৫৫ হাজার বর্গমাইলের এই রাষ্ট্রে রাজনীতিবিদ অনেকেই হতে পারেন, তবে নেতা ছিলেন কেবল একজনই। যার আঙ্গুলি হেলনে আমরা এক মোহনায় মিলিত হয়ে সৃষ্টি করেছি ইতিহাস।

তিনি বাঙালির কাছে বঙ্গবন্ধু, ফিদেল কাস্ত্রের কাছে হিমালয়, আর আমার কাছে রাজনীতির মহাকবি, ইতিহাসের রাখাল রাজা জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান। যিনি কেবলমাত্র একটি স্বাধীন রাষ্ট্র দিয়ে যাননি, উপহার দিয়ে গেছেন দেশরতœ শেখ হাসিনার মতো একজন সফল রাষ্ট্রনায়ককে। শেখ রেহানার মতো একজন মমতাময়ী বোন এবং স্বাধীনতা পূর্ব ও পরবর্তী প্রতিটি ক্রান্তিলগ্নের আন্দোলনের অগ্নিশিখা বাংলাদেশ ছাত্রলীগ।

স্বাধীনতা পরবর্তী স্বাধীন বাংলার বুকে দাঁড়িয়ে দ্যার্থহীন কন্ঠে উচ্চারণ করেছিলেন-‘ছাত্রলীগের ইতিহাসই বাঙালির ইতিহাস। আর যুগে যুগে এই ছাত্রলীগই সময়ের প্রয়োজনে জন্ম দিয়েছে কালের শ্রেষ্ঠ সন্তানদের। আমি সেই ইতিহাসে যাব না, কেননা তাদের যথাযোগ্য মূল্যায়ন আমার মত ক্ষুদে কর্মীর কলমে যথার্থ হবে কি না সন্দেহ।

এ. এম. ফারহান সাদিক
সাধারণ সম্পাদক, ফেঞ্চুগঞ্জ উপজেলা ছাত্রলীগ।
সাবেক কার্যনির্বাহী সদস্য, সিলেট জেলা ছাত্রলীগ।
সাবেক যুগ্ম আহবায়ক, ফেঞ্চুগঞ্জ উপজেলা ছাত্রলীগ।
মোবাইল নং- ০১৭১০-৩৯৬০৪৩