“Future Is Accessible” অর্থ্যাৎ “অধিগম্য আগামীর পথে” স্লোগানকে সামনে রেখে আজ মঙ্গলবার ২৮ তম আন্তর্জাতিক প্রতিবন্ধী দিবস এবং ২১তম জাতীয় প্রতিবন্ধী ব্যক্তি দিবস উপলক্ষে বিশেষ চাহিদা সম্পন্ন বন্ধুদের নির্বিঘ্ন ও স্বতঃস্ফূর্ত চলাচল নিশ্চিত করে একীভূত ক্যাম্পাস বিনির্মানের লক্ষ্যে স্বাধীনতার সূতিকাগার, প্রগতিশীল ছাত্ররাজনীতি চর্চার ঐতিহাসিক আতুরঘর মধুর ক্যান্টিনে ঢালুপথ নির্মাণকাজ শুরুর মধ্য দিয়ে দেশব্যাপী সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে বাংলাদেশ ছাত্রলীগের র‍্যাম্প নির্মাণ কর্মসূচির উদ্বোধন করেন বাংলাদেশ ছাত্রলীগ কেন্দ্রীয় নির্বাহী সংসদের সংগ্রামী সভাপতি (ভারপ্রাপ্ত) আল নাহিয়ান খান জয় এবং বিপ্লবী সাধারণ সম্পাদক (ভারপ্রাপ্ত) লেখক ভট্রাচার্য।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ ছাত্রলীগের দপ্তর সম্পাদক আহসান হাবিব, ঢাকা মহানগর দক্ষিণ ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগের ছাত্র মো. নাহিদ আলমসহ ছাত্রলীগের আরও কর্মীরা।

সভাপতি (ভারপ্রাপ্ত) আল নাহিয়ান খান জয় বলেন, ভালো কাজের সঙ্গে সবসময়ই ছাত্রলীগ ছিল এখনও আছে এবং ভবিষ্যতেও থাকবে। এমন একটা কর্মসূচীতে ছাত্রলীর জড়িত হওয়ায় খুবই ভালো লাগছে। ভবিষ্যতে এমন ভালো কাজ যেন আমরা আরও করতে পারি সেজন্য আমাদের প্রচেষ্টা অব্যাহত থাকবে।

এ ব্যপারে মো. নাহিদ আলম বলেন, বাংলাদেশ ছাত্রলীগের এ ধরনের ব্যতিকক্রমধর্মী কার্যক্রমের মাধ্যমে প্রতিবন্ধী ছাত্র ছাত্রীদের চলাচলের ক্ষেত্রে বিশেষ সুবিধা নিশ্চিত হবে।