ঈদের আয়োজনকে আরো বাড়িয়ে দিতে আজকের পত্রিকার এই উদ্যোগ।

ঈদের খুশিকে আরো বিস্তৃত করতে বাজারে এসেছে আজকের পত্রিকার ঈদ সংখ্যা। বাংলাভাষী ১১৮ জন লেখকের লেখা কবিতা, ছোটগল্প, উপন্যাস, ছড়া, কমিক্স, সাক্ষাৎকার সন্নিবেশিত হয়েছে এ প্রকাশনায়।

সাধারণ পত্রিকা স্টল ও হকারদের কাছ থেকে এই ঈদ সংখ্যা সংগ্রহ করা যাবে। এছাড়া রকমারি ডটকম, দারাজ, পল্লী বাজারের মতো ডিজিটাল স্টোরেও এই ঈদ সংখ্যা পাওয়া যাবে। প্রকাশনা সংস্থা শ্রাবণ-এ থাকছে প্রকাশনাটি।

গত সন্ধ্যায় মিরপুর ১০ নম্বরের পত্রিকা স্টলে দেখা যায় আজকের পত্রিকার ঈদ সংখ্যা হাতে বাংলাদেশ ব্যাংক কর্মকর্তা সরদার তাহসিন আহমেদকে। তিনি বলেন, ঈদ সংখ্যা তো সবাই বের করে। আমার কাছে ভিন্ন রকম লাগছে আজকের পত্রিকার ঈদ সংখ্যাটি। সাইজটা অনেকটা পেপারব্যাক ধরনের। আর ভেতরেরও লেখাও ভালো। ভালো লাগছে মলয় রায় চৌধুরীর উপন্যাস দেখে। আমি তাই কিনছি।

ঈদ সংখ্যার সূচিপত্র

রকমারিতে আজকের পত্রিকার ঈদ সংখ্যা অর্ডার করেছেন মনিপুর উচ্চ বিদ্যালয়ের বাংলার শিক্ষক মোস্তাফিজুর রহমান। তিনি বলেন, আমি মূলত কবিতা পড়তে পছন্দ করি। বিশেষ করে তরুণদের কবিতা। ফেসবুকে দেখলাম আজকের পত্রিকায় ঈদ সংখ্যায় অনেক তরুণের কবিতা প্রকাশ হয়েছে। তাই রকমারিতে অর্ডার করেছি। এখন আমার অপেক্ষার পালা।

আজকের পত্রিকার হেড অব অপারেশন গোলাম রাব্বানী বলেন, আমরা আমাদের সর্বোচ্চ সামর্থ্য দিয়ে এই ঈদ সংখ্যা প্রকাশ করেছি। এর জন্য আমি আমার টিমের প্রতি কৃতজ্ঞ। বিপণনের জন্যও আমরা নতুন কিছু আইডিয়া করেছি। যেটি নিয়ে এর আগে কেউ ভাবেনি। আশা করছি সব ধরনের পাঠকের কাছে ভালো লাগবে আমাদের আয়োজন। তাহলেই সার্থক হবে আমাদের উদ্যোগ।

আজকের পত্রিকা/এমএইচএস