শারীরিক অবস্থা উন্নতির পথে ওবায়দুল কাদেরের। ছবি: আজকের পত্রিকা

শুধু ছাত্রলীগ বা যুবলীগের নেতারাই নজরদারিতে আছে তা নয়, মূল দল আওয়ামী লীগের অনেক নেতাকেও নজরদারিতে রাখা হয়েছে বলে জানিয়েছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। ২০ সেপ্টেম্বর শুক্রবার আওয়ামী লীগ সভানেত্রী শেখ হাসিনার ধানমন্ডির রাজনৈতিক কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলনে এক প্রশ্নের জবাবে সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী এ কথা বলেন।

এ সময় ওবায়দুল কাদের বলেছেন, ‘যারা দলের ভাবমূর্তি নষ্ট করবে, তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা অব্যাহত থাকবে। কোনো ধরনের অপকর্মে জড়িত কাউকে ছাড় দেওয়া হবে না।’

প্রসঙ্গত, সম্প্রতি ছাত্রলীগের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদককে দল থেকে পদত্যাগ করতে বলা হয়েছে। তাদের বিরুদ্ধে চাঁদাবাজির অভিযোগ ছিল। আর যুবলীগের এক নেতা খালেদ মাহমুদ ভুঁইয়াকে অবৈধ ক্যাসিনো চালানোর অভিযোগে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

এ প্রসঙ্গে স্বয়ং প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ১৯ সেপ্টেম্বর বৃহস্পতিবার গণভবনে বলেছেন, ‘ছাত্রলীগের পর যুবলীগকে ধরেছি। কাউকে ছাড় দেওয়া হবে না।’