সাতক্ষীরা জেলা পুলিশের বিরুদ্ধে পুরাতন আইনজীবী ভবনের দরজা জানালা, আলমারি ও ফার্ণিচার ভাংচুরের অভিযোগ এনেছেন সাতক্ষীরা আইনজীবী সমিতির সভাপতি অ্যাড. শাহ আলম। এ ঘটনার প্রতিবাদে রোববার একযোগে কলম বিরতি কর্মসূচী পালন করেছে সাতক্ষীরার আইনজীবীরা।

এছাড়া এ ঘটনার প্রতিবাদ ও ঘটনায় জড়িতদের শাস্তির দাবিতে শহরে বিক্ষোভ মিছিল করেছে আইনজীবীরা।

সাতক্ষীরা আইনজীবী সমিতির সভাপতি অ্যাড. শাহ আলম জানান, গত বুধবার (২১ আগষ্ট) রাতে পুরাতন আইনজীবী ভবন ভাংচুর করা হয়েছে। দরজা-জানালা, চেয়ার-টেবিল, আলমারি ভাংচুর করা হয়েছে। আলমারিতে গুরুত্বপূর্ণ কাগজপত্র ছিল সেগুলো তছরুপ করা হয়েছে। ধর্মগ্রন্থ থাকা আলমারিটিও ভাংচুর হয়েছে।

তিনি বলেন, জেলা পুলিশের সঙ্গে ওই জায়গা নিয়ে একটি মামলা ও বিরোধ রয়েছে। সে মামলায় গত ৮ আগষ্ট আইনজীবীদের পক্ষে রায় দেন আদালত। এই রায় হওয়ার পর এমন ভাংচুরের ঘটনা ঘটলো। ধারনা করছি, পুলিশ এ ভাংচুরের ঘটনা ঘটিয়েছে বা তারা কাউকে দিয়ে এমন ঘটনা ঘটিয়েছে। ঘটনায় যারাই জড়িত থাকুক আমরা তাদের আইনের আওতায় এনে শাস্তির দাবি করছি।

আইনজীবী সমিতির সভাপতি অ্যাড. শাহ আলম আরও জানান, এ ঘটনার প্রতিবাদে আগামী ২৮ আগষ্ট সাতক্ষীরা প্রেসক্লাবে সংবাদ সম্মেলন ও ২৯ আগষ্ট জেলা আইনজীবী সমিতির পক্ষ থেকে মানববন্ধনের ডাক দেওয়া হয়েছে।

তবে অভিযোগের বিষয়ে সাতক্ষীরা পুলিশ সুপার মো. মোস্তাফিজুর রহমান বলেন, পুরাতন কোন আইনজীবী ভবনই নেই। ওটা পুলিশের জায়গা। পুলিশের নামে একোয়ার করা। ওখানে আইনজীবীদের কোন জায়গা নেই। তাদের কাগজ থাকলে দেখাতে বলেন।

বৈশাখী/সাতক্ষীরা