বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমির মহা পরিচালক লিয়াকত আলী লাকীকে ফুলের শুভেচ্ছা জানাচ্ছে শিক্ষার্থীরা।

‘রাজবাড়ী অ্যাক্রোবেটিক প্রশিক্ষণ কেন্দ্রটিকে একটি পূর্ণাঙ্গ প্রশিক্ষণ কেন্দ্র হিসেবে গড়ে তোলা হবে। বাংলাদেশের এই একমাত্র অ্যাক্রোবেটিক প্রশিক্ষণ কেন্দ্রে প্রশিক্ষণ নিয়ে শিশুরা বিগত ২বার চীন দেশ থেকে ১ বছরের প্রশিক্ষণ নিয়ে এসেছে। আগামীতে ১৬ জন শিশু ৩ বছরের জন্য ট্রেনিং নিতে যাবে।

এই শিল্পটাকে আধুনিকায়ন করে শিল্পীদের আরও দক্ষ করে গড়ে তোলা হবে। আউটসোর্স এর মাধ্যমে বাংলাদেশের প্রশিক্ষকদের নিয়োগ দেওয়ার ব্যবস্থা করা হবে। যাতে শিল্পীরা তাদের পরিবার পরিজন নিয়ে ভালো থাকতে পারে’।

১২ ফেব্রুয়ারি দুপুর ২ টায় রাজবাড়ী অ্যাক্রোবেটিক প্রশিক্ষণ কেন্দ্রে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ কথা বলেন, বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমির মহা পরিচালক লিয়াকত আলী লাকী।

এ সময় একুশে পদক এ ভূষিত হওয়ায় তাকে ফুলের শুভেচ্ছা জানায় অ্যাক্রোবেটিক দলের সদস্যরা।

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন জেলা প্রশাসক মো. শওকত আলী, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) আশেক হাসান ও জেলা শিল্পকলা একাডেমির কালচারাল অফিসার পার্থ প্রতীম।

অ্যাক্রোবেটিক দলের সিনিয়র গ্রুপের সঞ্জয় ভৌমিক ,জালাল উদ্দিন, গোলাম মওলা, আব্দুর মালেক, মোস্তফা ঠান্ডু, ইরিন আক্তার পুতুল, আকলিমা খাতুন, গাজী আব্দুল হান্নান, মজিদ বিশ্বাস, হাবিবুর রহমান বাবু ও আনোয়ার হোসেন।

পরে অ্যাকোবেটিক এর জুনিয়র ২টি টিমের শিশু অ্যাক্রোবেট শিল্পিরা তাদের নান্দনিক নৈপূর্ণতা প্রদর্শন করে।

কাজী তানভীর মাহমুদ/রাজবাড়ী