লক্ষ্মীপুর পল্লী বিদ্যুৎ সমিতির এজিএম (প্রশাসন) মো: এমায়েত হোসেন স্বাক্ষরিত এক প্রজ্ঞাপন

লক্ষ্মীপুর সদর উপজেলার ভবানীগঞ্জ ইউনিয়নের চরউভূতি গ্রামের ২ শতাধিক বিদ্যুৎ প্রত্যাশি গ্রাহকের নিকট হতে প্রায় ৪ লক্ষাধিক টাকা হাতিয়ে নেয়ার অভিযোগ উঠেছে হানিফ নামে এক আওয়ামী লীগ নেতার বিরুদ্ধে।

এনিয়ে লক্ষ্মীপুর মডেল থানা পুলিশকে তদন্তপূর্বক ব্যবস্থা নিতে নির্দেশনা দিয়েছে লক্ষ্মীপুর পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি।

হানিফ ওই গ্রামের মৃত কোব্বাত আলীর ছেলে ও সদর উপজেলার ভবানীগঞ্জ ইউনিয়নের ৪নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক।

২৯ অক্টোবর মঙ্গলবার বিকেলে লক্ষ্মীপুর পল্লী বিদ্যুৎ সমিতির এজিএম (প্রশাসন) মো: এমায়েত হোসেন স্বাক্ষরিত এক প্রজ্ঞাপনে এ তথ্য নিশ্চিত করেন।

প্রজ্ঞাপনে উল্লেখ করা হয়, গত ২৮ অক্টোবর লক্ষ্মীপুর থেকে প্রকাশিত সাপ্তাহিক রামগঞ্জ দর্পন পত্রিকায় “লক্ষ্মীপুরে পল্লী বিদ্যুৎ সংযোগের নামে অতিরিক্ত অর্থ আদায়’’ শিরোনামে সংবাদ প্রকাশিত হয়। ওই প্রতিবেদনে লক্ষ্মীপুর-৩ আসনের সংসদ সদস্য এ কে এম শাহজাহান কামাল ক্ষোভ প্রকাশ করেন এবং তদন্ত পূর্বক জড়িতদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়ার জন্য উল্লেখ করেন। প্রতিবেদনে হানিফ ৪ লক্ষ টাকা হাতিয়ে নিয়েছে মর্মে সংবাদ প্রকাশিত হয়।

লক্ষ্মীপুর পল্লী বিদ্যুৎ সমিতির জেনারেল ম্যানেজার (জিএম) মো: শাহজাহান কবির বলেন, শেখ হাসিনার উদ্যোগ- ঘরে ঘরে বিদ্যুৎ। এ বিদ্যুৎ নিয়ে কেউ প্রতারণা বা অর্থ বানিজ্যে লিপ্ত হলে ব্যবস্থা নেয়া হবে। সরকারের অগ্রাধিকার প্রাপ্ত পল্লী বিদ্যুতায়ন কার্যক্রমে সহযোগিতা কামনা করেন তিনি।

মো: সোহেল রানা/লক্ষ্মীপুর