তবলা বাদক জনি। ছবি: সংগৃহীত

সুরের আলো ছড়িয়ে বেড়ানো তবলা বাদক গোলাম সরোয়ার জনি চোখের আলো হারিয়ে অন্ধকার ঘরে দিন কাটান। শুধু তবলা বাদকই নন, একই সঙ্গে গীতিকার ও সুরকার তিনি।

৯০ দশকের ‘অনির্বান’ অ্যালবাম, স্কাউটের গানসহ বেশ কিছু গানের গীতিকার ও সুরকার জনি জীবনের এই প্রান্তে এসে এখন চোখের দুরারোগ্য ‘গ্লুকোমা’ রোগে ভুগছেন। যার কোনো উন্নত চিকিৎসা এ দেশে নেই। স্ত্রী ও দুই মেয়েকে নিয়ে তার সংসারে এখন অভাব আর অভাব। টানা পোড়েনের মধ্য দিয়ে চলছে দুই মেয়ের পড়া-লেখার খরচ।

জনি সুস্থ হয়ে না উঠলে এইভাবে আর কতো দিন চলবে। তাই অবশেষে সহযোগীতা চাইলেন এই গুণী মানুষটি। এমন অবস্থায় জনির স্ত্রী সাফিয়া আক্তার এদেশের সকল শিল্পী ও মিউশিয়ানসহ প্রধানমন্ত্রী ও এই দেশের হৃদয়বান, দানশীল মানুষের কাছে আর্থিক সাহায্যের জন্য আবেদন জানিয়েছেন।

সাফিয়া আক্তার জানালেন, তাদের দুই মেয়ে। ছোয়া ও ছায়া। বড় মেয়ে বোরহান উদ্দিন বিশ্ববিদ্যালয়ে তৃতীয় বর্ষের ছাত্রী। আর ছোট মেয়ের সামনে এসএসসি পরীক্ষা দিবে। পরিবারে তিনিই উপার্জন করতেন। কেউ সহযোগীতা করতে চাইলে যোগাযোগ করতে পারেন, গোলাম সরোয়ার জনি’র স্ত্রী সাফিয়া আক্তার (মোবাইল নং- 01862120576)।

আজকের পত্রিকা/এসএ/সিফাত