অভিবাসী চাকরি মেলা

‘অভিবাসী চাকরি মেলা’য় হবিগঞ্জে প্রায় চার শতাধিক স্নাতক ডিগ্রিধারী যুবক আবেদন জমা দিয়েছেন। এখান থেকে ইন্টারভিউর মাধ্যমে প্রায় দেড়শ’ আবেদনকারীকে প্রাথমিকভাবে মনোনয়ন করা হবে।

পরে পাসপোর্ট ও কাগজপত্র যাচাই-বাচাইসহ যাবতীয় প্রকৃয়া সম্পন্ন করতে পারবেন এমন ৫০ জন যুবককে চীন পাঠানোর জন্য চুড়ান্তভাবে মনোনয়ন করা হবে।

বুধবার (৪ ডিসেম্বর) সকাল ১০টায় জেলা শিল্পকলা একাডেমিতে এ অভিবাসী চাকরির মেলা’ শুরু হয়। বিশ্বের সবচেয়ে অর্থনৈতিক শক্তিধর দেশ চীনে শিক্ষিত ও দক্ষ জনশক্তি পাঠানোর লক্ষ্যে সরকার অনুমোদিত রিক্রুটিং এজেন্সি ‘সাইক ওভারসিজ’ একদিনের জন্য এই মেলার আয়োজন করেছে।

মেলা উপলক্ষে দুপুরে শিল্পকলার থিয়েটার হল রুমে এক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। ‘সাইক গ্রুপ ও সাইক ওভারসিজ’র চেয়ারম্যান আবু হাসনাত মো. ইয়াহিয়ার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন- হবিগঞ্জের জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ কামরুল হাসান।

বিশেষ অতিথি ছিলেন- হবিগঞ্জ পৌরসভার মেয়র মিজানুর রহমান মিজান, হবিগঞ্জ টেকনিক্যাল স্কুল এন্ড কলেজের অধ্যক্ষ প্রকৌশলী এসএম তরিকুল ইসলাম, ইসলামিক ফাউন্ডেশন হবিগঞ্জ জেলা কার্যালয়ের উপ পরিচালক শাহ মুহাম্মদ নজরুল ইসলাম, হবিগঞ্জ প্রেসক্লাবের সভাপতি মো. হারুনুর রশীদ চৌধুরী প্রমূখ।

আলোচনা সভায় ‘সাইক ওভারসিজ’এর পক্ষ থেকে জানানো হয়- ‘চীনের জিয়াংশি প্রদেশের ২টি কারখানার জন্য অপারেটর হিসেবে মনোনীত ৫০ জন যুবক এ সুযোগ পাবেন। তাদের প্রাক মুল্য এয়ার টিকেটসহ (বিমান ভাড়া) মাত্র দুই লাখ টাকা। সেখানে তারা কোম্পানীর অধিনে থাকা খাওয়া ও চিকিৎসার ব্যবস্থা পাবেন। আর প্রতিমাসে বেতন পাবেন ৩৬ হাজার টাকা।