ওসি মোয়াজ্জেম হোসেন। ছবি : সংগৃহীত

অবশেষে গ্রেফতার করা হলো ফেনীর সোনাগাজির বহুল আলোচিত ওসি মোয়াজ্জেমকে। ১৬ জুন রবিবার রাজধানীর শাহবাগ এলাকা থেকে গ্রেফতার করা হয় তাকে।

রমনা জোনের ডিসি মারুফ হোসেন সর্দার এ বিষয়ে নিশ্চিত করে জানান, রাজধানীর হাইকোর্ট সংলগ্ন কদম ফোয়ারা এলাকা থেকে ওসি মোয়াজ্জেমকে গ্রেফতার করা হয়েছে। তাকে সোনাইগাজী থানা পুলিশের কাছে বুঝিয়ে দেয়া হবে। বাকি দায়িত্ব তাদের।

ব্রিফিংয়ে রমনা জোনের ডিসি মারুফ হোসেন সর্দার। ছবি: সংগৃহীত

এদিকে দায়িত্বশীল একটি সূত্র আজকের পত্রিকাকে জানায়, ওসি মোয়াজ্জেমকে ফেনীতে নেবার কোন যৌক্তিক কারন নাই, ওয়ারেন্টটা যেহেতু সোনাগাজী থানায় গেছে, তাই সোনাগাজী থানা পুলিশকে আসতে বলা হয়েছে। কাল তাকে ঢাকার সাইবার ট্রাইবুনালে হাজির করবে।

উল্লেখ্য, হত্যাকাণ্ডের শিকার মাদরাসাছাত্রী নুসরাত জাহান রাফির জবানবন্দির ভিডিও ইন্টারনেটে ছড়ানোর অভিযোগে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে সোনাগাজী থানার সাবেক ওসি মোয়াজ্জেম হোসেনের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হয়।

মাদরাসাছাত্রী নুসরাত জাহানকে গত ৬ এপ্রিল পুড়িয়ে হত্যার চেষ্টা করা হয়। তার দিন দশেক আগে মাদরাসার অধ্যক্ষ সিরাজ উদ দৌলার বিরুদ্ধে শ্লীলতাহানির অভিযোগ জানাতে সোনাগাজী থানায় যান নুসরাত। থানার তৎকালীন ওসি মোয়াজ্জেম হোসেন সে সময় নুসরাতকে আপত্তিকর প্রশ্ন করে বিব্রত করেন এবং তা ভিডিও করে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে দেন।

ওই ঘটনায় ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলা হলে আদালতের নির্দেশে সেটি তদন্ত করে পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন (পিবিআই)। পিবিআই গত ২৭ মে আদালতে অভিযোগপত্র জমা দিলে ওই দিনই গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি হয়। পরোয়ানা জারির দুদিন পর মোয়াজ্জেম হোসেন হাইকোর্টে জামিন আবেদন করেন।

আজকের পত্রিকা/সিফাত/এমএআরএস/কেএফ