ইজতেমার প্রস্তুতি চলছে।

অবশেষে পঞ্চগড়ে অনুষ্ঠিত হচ্ছে বিশ্ব ইজতমোর আদলে ভারতের দিল্লির মাকাজ মসজিদের সাদ অনুসারী তাবলীগ জামাতের ৩ দিনব্যাপী আঞ্চলিক ইজতমো। আগামী ২৮ মার্চ বৃহস্পতিবার থেকে পঞ্চগড় শহরের রামেরডাঙ্গা মাঠে এ ইজতেমা শুরু হবে।

জানা যায়, সাদপন্থি তাবলীগ জামাতের ৩ দিনব্যাপী আঞ্চলিক ইজতেমা আয়োজনের জন্য গত ৫ মার্চ পঞ্চগড় জেলা প্রশাসকের কাছে অনুমতির জন্য আবেদন করেন।

এ ইজতেমার অনুমতি না দিতে পঞ্চগড়ে সাদবিরোধী (জোবায়ের গ্রুপ) তাবলীগ জামাতের মুরুব্বি মোকলেছুর রহমান পাল্টা জেলা প্রশাসনের কাছে আবেদন করেন। এতে উভয় পক্ষের মধ্যে চাপা ক্ষোভ বিরাজ করছিল।

এ নিয়ে জেলা প্রশাসন উভয়পক্ষকে নিয়ে একাধিকবার বৈঠকে বসেন। অবশেষে ২৩ মার্চ শনিবার জেলা প্রশাসন সাদপন্থি তাবলীগ জামাতকে আঞ্চলিক ইজতেমা আয়োজনের অনুমতি দেন। পঞ্চগড় সাদপন্থি তাবলীগ জামাতের জিম্মাদার প্রভাষক মো. মুক্তার আলী জানান, ইজতেমা আয়োজনের জন্য সকল প্রস্তুতি সম্পন্ন হয়েছে। শত শত তাবলীগ জামাতের অনুসারী ইজতেমার প্যান্ডেল তৈরিতে মাঠে কাজ করছেন।

হাজার হাজার ধর্মপ্রাণ মুসলমানের জন্য মাঠের তিনদিকে পর্যাপ্ত গোসলখানা, ওজুখানা, টয়লেট নির্মাণ কাজ চলছে। দেশি বিদেশি মেহমানদের জন্য এখানে সকল প্রকার ব্যবস্থা রয়েছে।

ঢাকার কাকরাইল মসজিদের আহলে সুরা মাওলানা মো. মোশাররফ হোসেন মোনাজাত করবেন বলে স্থানীয় জিম্মাদাররা জানিয়েছেন। ইজতেমাকে সফল করতে জেলা প্রশাসন ও পুলিশ প্রশাসনের পক্ষ থেকে সার্বিক নিরাপত্তা ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে। পঞ্চগড় পুলিশ সুপার মো. গিয়াসউদ্দিন আহমেদ জানান, ইজতেমা আয়োজনের জন্য আমরা অনুমতি দিয়েছি। ইজতেমা সফলভাবে সম্পন্ন করতে পর্যাপ্ত আইনশৃঙ্খলা বাহিনী মোতায়েন করা হবে।

ইনশাআল্লাহ আইনশৃঙ্খলা আমাদের নিয়ন্ত্রণে থাকবে।

পুলক/পঞ্চগড়/জেবি