অভিযান চালাচ্ছে ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশন । ছবি: সংগৃহীত

রাজধানীর ইন্দিরা রোডে অভিযান চালিয়েছে ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের ভ্রাম্যমান আদালত। ১৬ মে বৃহস্পতিবার এই অভিযান চালানো হয়। অপরিচ্ছন্ন ও অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে খাবার রান্না করায় প্রিন্স হোটেলকে ২ লাখ টাকা এবং পঁচা সবজি, ফল, মুরগি ও গরুর মাংস একই ফ্রিজে রাখায় সুপার শপ আগোরাকে ১ লাখ জরিমানা করা হয়।

ডিএনসিসি অঞ্চল ৫ এর আঞ্চলিক নির্বাহী কর্মকর্তা ও নির্বাহী ম্যজিস্ট্রেট মীর নাহিদ আহসান কারওয়ানবাজার, ফার্মগেট ও ইন্দিরা রোড এলাকায় ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা এবং অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ অভিযান চালান।

অভিযানে কারওয়ানবাজারে রাস্তা দখল করে থাকা দুই শতাধিক অস্থায়ী দোকান উচ্ছেদ করা হয়। এছাড়া ফার্মগেট ওভারব্রিজ থেকে ইন্দিরা রোডে ফুটপাত ও রাস্তা দখল করে রাখা আরো ২ শতাধিক অস্থায়ী দোকান উচ্ছেদ করা হয়।

ভোক্তা অধিকার আইন অনুযায়ী ইন্দিরা রোডে পঁচা সবজি ও ফল রাখা এবং মুরগি ও গরুর মাংস একই ফ্রিজে রাখার অপরাধে আগোরাকে ১ লাখ এবং অপরিচ্ছন্ন ও অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে খাবার রান্না করায় প্রিন্স হোটেলকে ২ লাখ টাকা জরিমানা করা হয়।

ডিএনসিসির আরেক নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সাজিদ আনোয়ার দুপুর ১২টা থেকে বিকেল ৪টা পর্যন্ত বনানী ও নতুনবাজার এলাকায় ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করেন। বনানীতে কাঁচামরিচের দাম বেশি রাখা এবং মূল্য তালিকা না রাখার অপরাধে ৫টি দোকানে ভোক্তা অধিকার আইন অনুযায়ী মোট ৬০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। এ ছাড়া নতুনবাজার এলাকায় মাংসের দোকানে মূল্য তালিকা না থাকায় ২০ হাজার টাকা করে ৪০ হাজার টাকা এবং একটি মুদি দোকানে মূল্য তালিকা না থাকায় ১০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।

আজকের পত্রিকা/কেএফ