৫টার মধ্যে সকল শিক্ষার্থীদের হল ছাড়ারও নির্দেশ দিয়েছে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ। ছবি: সংগৃহীত

অনির্দিষ্টকালের জন্য বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয়। স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস উপলক্ষে আয়োজিত অনুষ্ঠানকে কেন্দ্র করে সৃষ্ট আন্দোলনকে ঘিরে বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্যাম্পাস বন্ধের এ ঘোষণা আসে। সেই সঙ্গে ২৮ মার্চ বৃহস্পতিবার বিকাল ৫টার মধ্যে সকল শিক্ষার্থীদের হল ছাড়ারও নির্দেশ দিয়েছে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ।

২৭ মার্চ বুধবার বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার হাসিনুর রহমানের স্বাক্ষরিত এক নোটিশে দেওয়া এই নির্দেশনায় লেখা হয়েছে, “২৬ মার্চ বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয়ে ‘স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস-২০১৯’ উদযাপন উপলক্ষে উদ্ভুত ঘটনার প্রেক্ষিতে সাধারণ শিক্ষার্থী, শিক্ষক, কর্মকর্তা ও কর্মচারিদের নিরাপত্তা ও বিশ্ববিদ্যালয়ের সার্বিক পরিস্থিতি সমুন্নত রাখার স্বার্থে উপাচার্যকে প্রদত্ত ক্ষমতাবলে আগামী ২৮ মার্চ থেকে বিশ্ববিদ্যালয়ের যাবতীয় ক্লাস, পরীক্ষাসহ সকল একাডেমিক কার্যক্রম অনির্দিষ্টকালের জন্য বন্ধ ঘোষণা করা হলো এবং একইসঙ্গে সকল হলের আবাসিক শিক্ষার্থীদের বৃহস্পতিবার বিকেল ৫টার মধ্যে হল ত্যাগের নির্দেশ প্রদান করা হলো।”

উল্লেখ্য, ২৬ মার্চ স্বাধীনতা দিবসের অনুষ্ঠানে বিশ্ববিদ্যালয়ের সাধারণ শিক্ষার্থীদের আমন্ত্রণ জানানো না হলে, এর প্রতিবাদ জানান সাধারণ শিক্ষার্থীরা। কিন্তু তারা দাবি করেন, বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য তাদেরকে ‘রাজাকারের বাচ্চা’ বলে সম্বোধন করেছেন। এ অভিযোগ এনে বুধবার দিনভর প্রশাসনিক ভবনে তালা ঝুলিয়ে ক্লাস-পরীক্ষা বর্জন করে বিক্ষোভ করেন বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা।

আজকের পত্রিকা/সিফাত