logo

শুক্রবার, ১১ মার্চ ২০১৬ . ২৮ ফাল্গুন ১৪২২ . ৩০ জমাদিউল আউয়াল ১৪৩৭

কবিতা
১১ মার্চ, ২০১৬
নীল আকাশের স্বপ্ন

সীমা কুন্ডু

স্নিগ্ধ ছিলে

বুকের কাছে

জড়ানো সময়,

আকুলতা হলে

কানের গভীরে

স্বরে মনোময়।

 

চুম্ব^ন হলে

হাতের পিঠে

অনামিকা ধরে,

বাহুডোরে হলে

কামনার শিখা

প্রকাশ অধরে।

 

কুঁড়ি হলে

লতায় জড়ানো

পাতার আড়ালে,

অশরীরী হলে

শরীরের মাঝে

মায়ায় হারালে।

সুবাস হলে

ঘুমভাঙা ভোর

কপালের মাঝে,

আলো হলে

মাটির প্রদীপে

মায়াময় সাঁঝে।

নিঃশ্বাস হলে

বুকের পাঁজরে

উঠা-নামা এক,

অনুগামী হলে

আগামী দিনের

জীবন আরেক।

 

নিষিদ্ধ হলে

তবু তুমি আজ

নীলিমায় নীল

মেঘ হয়ে আসো

অঝোরে ভাসুক

আমার নিখিল।

 

শহুরে কোকিল

জিনিয়া চৌধুরী

শহুরে কোকিল বড্ড অসময়ে ডাকে

কুহু কুহু মাতমে জানায়

এখন রতিকাল

শহুরে সঙ্গিনী বুঝি তেমনি বেহায়া

তার সাড়া মেলে, দেখা মেলে না।

এমন স্বপ্নীল ঘোর লাগা প্রহরে

উদাসীন চোখে-মুখে অজস্র ব্যাকুলতা

আকুলতা দেখি পাশের ব্যালকুনি ঘেঁষে

দাঁড়ানো অশীতিপর বৃদ্ধ দাদুর চোখে

চোখ পড়তেই বিব্রত

সলজ্জ হাসিতে বলে, পাখিটা জ্বালাচ্ছে খুব

আজ ভাতঘুমে রণভঙ্গ।

এমন লাজময় উত্তরে জাগে প্রশ্ন

দেখি তার অনতিদূরেই সদ্যকৈশর ছাপানো

ছেলেটি দৃষ্টিভ্রমে দেখে ওপারে মুখের একপাশে চুল ছড়ানো

কিশোরীর নগ্ন বাহু, ঘর্মক্লান্ত ছটফটে অনুকরণ।

 

যৌবন সমাহিতপ্রায় উকিল বাবুর যুবতী বৌটা

আঁচলে ঢাকে বুক

মলো জ্বালা বোকা কোকিলটা এতো অবুঝ কেন

গলায় রক্ত তুলে মরবি শেষে

গলা তুলে যেন জানান দেয় তার অস্তিত্ব

আমার জিগ্গাসু দৃষ্টিকে উপেক্ষা করে

দু’হাত তুলে বাঁধে এলো খোঁপা

তার বগল চুয়ে নেমে আসে ফোঁটা ফোঁটা অপেক্ষা।

এই বুঝি বসন্তের মধ্য দুপুর, পিয়াসি দুপুর

আমার বুক ভরে জেগে ওঠে তৃষ্ণা

গলা তুলে করি নকল

অবিকল ঐ কোকিলের সুর

কুহু, কুহু, কুহু, কুহু

কই হে বিরহী পুরুষ, আজ এই হলুদাভ ফাগুনে

আমারও একেলা দুপুর।

সর্বশেষ খবর

শঙ্খচিল এর আরো খবর

আজকের পত্রিকা. কমের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ নিষেধ

Developed by